জুমহাবা পালা

 

রাধামনঃ
ধন’ হেল্লে জেবঙ আমি জুমহাবা
উই সোচমোন তাগি ভালোক-দুরোত
দিওমুরো জার নাঙ, আবিদি তারুম
ভালোক-ভুলোনোত্তেই – ধনপাদা সারি-

ধনপুদিঃ
দিওমুরো-জুমহাবা ! আমারে ইরিনে ?
দুরোত-ভালুদ্দুরোত ! হমলে ফিরিবা ?
মনানত  নউধিবো সবায় আমারে,
ত সমারুন, ঘিলে হারা নাদেঙ হারার
এ খলাগুন। সমার আমা দিজনর
লাঙেলর সাবাগান চামিনি বনর।
তলে জার দিজনর মনর ধারাচ
নিরিবিলি একসঙে পাঘোর মিলিলো।
জুনো প’রত সমারবদি নানা খারা,
চলাচলি গরিনেই রাক জলাজলি
আর’ ফিরি পোচপানা আর’ বেচগরি।
ঈদোত উধিবো নাহি আমা সিদেনর
মা-লকখীমা ফুলর ঝুবুর গাচ্ছো
তলে জার বারিজ্যের সাজন্যে খেনর
দিজনর ঈদোদর পত্তাপত্তি
সয়সাগর উরোন অনসুর গরি।

রাধামনঃ
লেবেদেই আঘে বে’ক – ভেক্কানি তুংঙোবি
মনানর রিবেঙত। হানেব’ পরান-
অনসুর অজিরেন হানেব’ মনান-
পরানর ধনপাদা – ভরন্দি আদাম
পরানর ধনপুদি – সমারি দোলবি –

ধনপুদিঃ
সালে নজেচ পরান –

রাধামনঃ
                           সিঙিরি ন’হোচ
ধনবি, মুই হি আর আঘঙ চিগোন
আগ’ সান ? বানাবানা সময় বিদানা
নয় আর। বাপমায় দাঙর-দিঘোল
গরিলাক সিয়েনহি বেনামা বেনামা ?
জুম হাবিম এবার মুই। তারুমর
ফিবলা, আপদবলা বুঘোত ফলেম
সবনর সোনাধান, বানাবানা নয়
আর তর আর মর মালা ভাঙালোই
ঘর-গিরিত্থি খারা, ঘেচ্চেক গরি,
পরানি, তরে লোনেই বানিধুঙ চাঙ
চিগোন সুঘোর ঘর – ভরন-বিরোন –
ধনপাদার বুঘোত – দিজনর ঘর –
তর আর মর।

ধনপুদিঃ
                    মুই পুজিলুঙ চোক
মাপ গরিচ দা রে, নবানিম তরে
পাদারার তেঙেরায় চিগোন মনর।
তবনা সুগোজেনরে, আকপাদা জে’ন
পরে তর ধারাজত, আ মর মনর
তবনা দাধো ত সিধু, পুরি নফেলেচ
ত হবালপুরনিরে, নিঝি ফারগত।

রাধামনঃ
ধনপাদা-ধনপুদি – পুরি ন’ফেলেম
সকুরি ঘরর এই দোল আদামান
মিঝি আঘে জার বোয়েরত ম’ নিঝেচ।
ফিরিলে হামত্তুন বেল্লে মাধান
চাবাঙ গরি বেরান গাবুচ্চেলগে;
নিঝিরেত ধাকফিরে হেঙগরঙর,
বাঝির আর ধুদুগোর নোনেয়ে সুরোত।
রিপরিপ সুনো জায় রাদার – ধিঙির
মিধে র’ দুরোত্তুন। বারিজ্যের রেদোত
বেঙ ধরন আঘুন লুরো জালিনেই।
রেত মাধানত লগে এঘামার গরি
চরঘা-চরঘির র’ সুনি পেভে তুই।
জার কালত বঝিনে আঘুন ফুয়ান
বারে বুরো-বুরিলক, তগান – তুলোন
সুর ধরি নানা হধা, জেন ঈদোদর
বেরচাগা বুনোনান। দুঘোর সুঘোর
ঈদোদর জাল বুনোনা তানদে তানদে
মিদিঙে বাঝর দাবা। জুনর প’রত
সঙসমারে মিলিনে নানা খারা খনা।
দিবুচ্ছে মাধানত বুনন বেইন
মিলেলগে বঝিনেই পত্তি ঘরত।
অনসুর ভারিগরি ঈদোত উদিবো।
ঈদোত উদিবো লগে আজু চলাবাবরে।
ঈদোত উদিবো তরে, তর মেয়েবান।
পুরি ফেলেবে নাহি মে তুই পরানবি ?

ধনপুদিঃ
পুরিদ’ মুই ফেলেম তরে পরানদা
পুরি ফেলেই পারিদ’ নয় ম-মনানে
অনসুর তোগেবাক তরে চোক্কুনে
মিধে আঝায় ভুলেই রাঘেম তারারে

রাধামনঃ
গমে থেচ, সুঘে থেচ জাঙর এবার –

ধনপুদিঃ
ইয়ো, হধা হলে একখান মানিবেনি ?

রাধামনঃ
হি হধা হধে পরান ?

ধনপুদিঃ
                                   হধা দ্যন বেঘে
নিলদা, মেয়েদাদাঘি তুলি থোই দিবাক
সুচ্চেক-তাগলক গম গম বে’ই –

রাধামনঃ
বুঝিলুঙ, নভাবিচ, তুলিদিম মুয়ো –

ধনপুদিঃ
সুচ্চেক বাচ লভে দঘিন ধাগর
পুক ধাগর ব’-কাধি, লগে থুরচুমো
একজুর তাগলক লভে পঝিমর।

রাধামনঃ
বুনিদিম তত্তেই নিল বেত দিনেই
ফুলর সাম্মো ইক্কো –

ধনপুদিঃ
                             চিগোন হুরুম
সালে বুনিদিচ নিল বেধর দোলেে
আ সেলঘে হেঙগরঙ মিদিঙে বাঝর।
তোনতোগা সলনাদি এভঙ মোনত
ভেক্কানি পেধুঙ্গি এলে সিদু মুই।

রাধামনঃ
বাগত লামিলে আমি চিনিবে হিধগে
তর সচপদরানি ?

ধনপুদিঃ
                                        চিন্নক দিচ
পান’পিচ রাঙাগরি, চিনিমস্যা সালে।

রাধামনঃ
রাদাভো দাক হারের, এবার জাঙর
মোনোত দগত্তন মোনবগা ঝাক।
ফুদিবো প’র হাক্কে, উদিভো বেলান
সাঙু লামিবোঙ আমি দুরোর উদিঝেে
একসঙে একগঙে হমর বানিনে
জুমহাবাত – তত্তেই-ধনপাদাত্তেই।

Advertisements

মারবেল পাত্থরত নিলোজমন -হরেন্দ্র চাকমা

মনান ইক্কো রঙচোঙ্যা মার্ব্বেল পাত্থর যেন চিগোন গুরয় খারা হন
অকাবিল কুজি ইঞ্জেব তাকচানাৎ রোয় ন মিলানার আবিলেশ
ফিরি তাকচানার দোকদোক্যা আহ্ওজ। জাঙাল আধেই
গচ্যেই যায় কজমা নিলোজ মন।
পোচপানার ঈধি ফাল পাদেয়্যা পিংগুল নাদান পিত্থিমিৎ
নাটকঅ জিংকানী গোর অয় ভান গরি হ্াজানা মাদানাৎ কাবিল বারবো মন
তুঅদ-হাক্কনত্তেই রাজা ফগির অয়, ফগির রাজা অয়
আর দুঃগ চোগপানিয়ে তামজাং ঝড়ে, কার সুগ আহ্জিৎ
পিত্থিমীর রিবাং গিরগিরায়। লাভ কধা নয়, ভান গরানাৎ
যারে য্যানে সাঝে যেন্ মনঅ মুরোত্ কাদা রাগেই
ও-ল গরেবার আহ্ওজ; অচিন বিজাদি লরবো সিত্তুন
শত্তুর ইংরেজ, কালা মোন উদিজে পথ দেগানার কাবিল ভান্
কাজলঙঅ রিজার্ভও কাজলদ্যা অরিং চোগির।
আঙুল মাধাৎ দিগবন স্যান কি চাদে কম ?
নিজিরেত; মমতাজর মিধে হ্াজিৎ তাজমহল কেয়্যা ঝাগারায়
সাহাজাহান সলঙৎ বনিজেস্ ছাড়ে, জাগি উদে একঝাক মাত্তল।
মধ্যরেত, যে কবি তামজাঙঅ পারত বজি, মন আহ্ওজে
তাজমহলর মার্ব্বেল পাত্থর ফাদায়, তা আঝাত্ ফুল পরোক।
অক্তে অক্তে, নিলোজ মন মহাভারতর সাজন্যা দ্রৌপদী তগায়
যেন কাবুগর ধার পই তাগি থায় রেদ শিগেরীর বিলেই চোখ,
বেল মিদে সদগত্ লাংদা হিজল ঝারত ধল বগা উরি যান
রীনা মেসিনজারঅ নিগুচ্ আহ্দানাৎ স্বর্গর বেক দোলানি লই
নোনেইয়্যা নিতম্ব নাজি উদে, যেন সলং বদলেয়্যা বিষ সাপ লরেচরে।
তা লগে হ্াজার চোগ জ্বালা জুরোয় উমরঅ আহ্নজামৎ
নাফিসার মাত্তল আহ্জিৎ হ্াজার গোলাপ ফুদন
এ যুগৎ আমি এক গোধেল কজরা জারবো অচল আধুলি
কন আমলর ফুল বারেঙৎ আগি পড়ি।
ইরুগ যন্ত্রনা আ নিলোজ মনর ভালবাসা নয়,
নিঝিরেত পরবাসর সজাগঘুম, মাত্তল জুনির মিধে সদগে
কাজলঙর রিজার্ভৎ হ্াজার হ্াজার শিগেরীর চোখ
ঝিমিৎ ঝিমিৎ জ্বলি উদন যেন্ বোম্বের কুইন নেকলেজর আলোকসজ্জা।
গভা মন গভীন বনিজেচ্, এ পরান চাই সরান 
দগিনঅ বিষ বোয়েরত আমা আঝা সদর তোগায়
-ঝিমিদৎ নাজি উদন হ্াজার চোখ।
ইক্কু মনান পাগল কামানঅ গুলি; শত্তুর বুকচিরি
লো’র দোর্চ্যাৎ ডুবি থেদ চায়, রগনী কলজ্যা সিদেনদি
এ গুলিত তাজমহল ভাঙি যেব গলি গলি পড়িব –
রীনা মেসিনজারঅ সোনা কেয়্যা, ঝরি পড়িবাক
হ্াজার গোলাপ নাফিসার দোলনেই হ্াজানাৎ।
আরঅ ফিরি এব এ দিন
পরাক পরাক অই উদিব রাঙা বেলর মিদে সদগে
নিলোজ মন তজিম অব জাদর স্ববন।
ইজোরঅ মাধার ডালিম আর গয়াম বাগানৎ নাজি বেড়েবাক্
ঝাক ঝাক বুলবুল, সাহানাজ এ গাজত্তুন উগাজৎ
- যেন লাঙ মেয়্যা সদর তোগায় সদরঅ বুগৎ।
আর ফিরি বেরেব রীনা মেসিন্জার
করঙা কাপ্যে রেড রিবন ধল বুগৎ বানি
জুনপর ফুট্যা ধলকরা উদোনৎ।
নাফিসার মাত্তল আহ্জিৎ হ্াজার গোলাপ ফুদিবেক
তা সেরে তাজমহল জন্ম অব; জন্ম লব চাকমার
নুঅ বিজক রুবো পাদৎ সোনা অক্ষরে।
আরঅ নিলোজ মন তজিম অব
রঙচোঙ্যা মার্ব্বেল পাত্থর
হ্াজারে হ্াজার।

জাদর পরান আদামত

 

জাদর পরান আদামত,
তজিম চাঙমা আদাম,
তজিম চাঙমা জাত।

ও আমা আদামান, আমা পরানান
আমার আহ্ওজোর গেদি সাগিনান।

চেরোপালা ঘিরি আঘে তারে এহ্ল তারুমান,
হরত বঝেই রাঘেয়ে তারে প’ন সোরাগান,
ভুয়ে-জুমে ভরন-ভিরোন হন’-হিচ্ছু নেই পরা,
ধানে-চোলে তোন-পাদে বেঘর আঘে ঘর ভরা।

সঙ মধ্যে আদাম’ পরান আমা হিয়োঙান,
আঘে আর’ তা হুরে আমা ইসকুলান,
হিয়োঙত জেনেই বেন্যে-বেল্লে বুদ্ধরে পুজিয়োই,
ইসকুলোত জেনেই পোরভুওলগে লেঘা শিগোন্নোই।

বেঘেমিলি আমা আদামান তজিম বানেবঙ,
সেজান গরি আমা জাত্তো তজিম বানেবঙ।